সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১
Welcome
আন্তর্জাতিক খেলাধুলা জাতীয় বিনোদন ব্রেকিং নিউজ

টিকাদান ব্যবস্থাপনায় ‘নৈরাজ্য’ চলছে: মির্জা ফখরুল

একুশের আলো ডেস্ক | করোনাভাইরাসের টিকাদান ব্যবস্থাপনায় ‘নৈরাজ্য’ চলছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, করোনা মোকাবিলায় এই সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। এর ফলে আজকে টিকা প্রদানে ম্যানেজমেন্টের প্রচণ্ড রকমের নৈরাজ্য সৃষ্টি হয়েছে। সেই নৈরাজ্যের কারণে গোটা জনজীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে। অবিলম্বে টিকা সংগ্রহ করে করোনা মোকাবিলার জন্য একটি রোডম্যাপ ঘোষণা করে সত্যিকার অর্থেই জনগণের জন্য কাজ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর ৫২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সকাল ১১টায় বিএনপি মহাসচিব নেতাকর্মীদের নিয়ে বনানী কবরস্থানে যান। এ সময় কোকোর কবরে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান এবং তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করেন।

লকডাউন তুলে নেওয়া প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রথম থেকে বলছি, আসলে করোনা মোকাবিলায় সরকারের টোটাল ম্যানেজমেন্ট ব্যর্থ হয়েছে। অপরিকল্পিত লকডাউন, অপরিকল্পিত টিকা ব্যবস্থা, অপরিকল্পিত মানুষের জীবন ব্যবস্থা সব মিলিয়ে এই সরকারের আর এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকা ‍উচিত নয়। অবিলম্বে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত।

সরকারের সমালোচনা করতে গিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ভয়াবহ ফ্যাসিস্ট সরকার আজকে আমাদের বুকের ওপর চেপে বসেছে। ১/১১ এর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ধারাবাহিকতা এই সরকার।

আরাফাত রহমান কোকো যোগ্য ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আরাফাত রহমান কোকোর উদ্যোগে বাংলাদেশে ক্রিকেটের নবযুগের সূচনা হয়।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম, বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব আমিনুল হক, দক্ষিণের রফিকুল আলম মজনু, যুবদলের সাইফুল আলম নিরব, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করীম বাদরু, মামুন হাসান, এসএম জাহাঙ্গীর, স্বেচ্ছাসেবক দলের মোস্তাফিজুর রহমান, আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের ফজলুল রহমান খোকন, বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার ও শায়রুল কবির খানসহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এর আগে সকাল ৭টার দিকে ফুলের তোড়া নিয়ে বনানী কবরস্থানে যান বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। এ সময় তিনি কোকোর কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান এবং দোয়া করেন।

কোকোর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বেলা ১১টায় বিএনপির কর্মসূচি থাকলেও রিজভী অসুস্থ থাকায় এবং জনসমাগম এড়াতে একা একা শ্রদ্ধা জানান কোকোর কবরে।

২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি ৪৫ বছর বয়সে মালয়েশিয়ায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান কোকো। পরে ২৮ জানুয়ারি তার মরদেহ দেশে এনে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়।

আরাফাত রহমান কোকোর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তরে কোরআন খতম ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- আবদুস সালাম, খায়রুল কবির খোকন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, মনিরুজ্জামান মনির, তাইফুল ইসলাম টিপু, রবিউল ইসলাম রবি প্রমুখ।

এছাড়াও বিকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়েও মিলাদের আয়োজন করা হয়।

Related posts

চাঁদ দেখা গেছে ২১ জুলাই ঈদুল আযহা

admin

বসিলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে র‌্যাব

admin

আজ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী

admin

Leave a Comment

Translate »