Welcome
আইন ও বিচার আন্তর্জাতিক খেলাধুলা জাতীয় ধর্ম ও জীবন বাংলাদেশ বিনোদন সাক্ষাৎকার

৬৫ বছর বয়সে বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী

 

একুশের আলো ডেস্ক | বিয়ে করেছেন পঞ্চগড়ের সাংসদ রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। গত শনিবার (৫ জুন) ইসলামী শরিয়াহ ও সরকারি আইন অনুসরণে রেলমন্ত্রী বিয়ে করেন।

আজ শুক্রবার (১১ জুন) সকালে বিয়ের বিষয়টি গণমাধ্যমের কাছে নিশ্চিত করেছেন শাম্মী আকতার মনির বড় ভাই মো. জাহিদুল ইসলাম মিলন হোসেন।

দিনাজপুরের বিরামপুরের প্রয়াত আব্দুর রহিমের মেয়ে শাম্মী আকতার মনি থাকেন ঢাকার উত্তরায়। তার দুই ভাই বিরামপুরেই থাকেন, সেখানে ব্যবসা করেন তারা। নুরুল ইসলাম সুজনের প্রথম স্ত্রী নিলুফার জাহান ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে মারা যান। তাদের এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। তিন সন্তানেরই বিয়ে হয়েছে।

শাম্মী আকতার মনির বড় ভাই জাহিদুল ইসলাম মিলন বলেন, শাম্মী ঢাকার উত্তরায় থাকেন। সে আইন বিষয়ে পড়াশোনা শেষ করে হাইকোর্টে এক সিনিয়রের সঙ্গে প্র্যাকটিস করছেন। আইনি বিষয়ে পরামর্শ নিতে ২০ দিন আগে রেলমন্ত্রীর কাছে যায় আমার বোন। পরে আমার বোনকে মন্ত্রীর পছন্দ হয়। পারিবারিকভাবে ৫ জুন উত্তরায় আমার বোনের বাসায় তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়েতে বরপক্ষে উপস্থিত ছিলেন বিরামপুরের বিচারপতি ইজারুল হক ও তার স্ত্রী। কনে পক্ষে আমি ও আমার ভাই উপস্থিত ছিলাম।

বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে রেলমন্ত্রী শুক্রবার গণমাধ্যমকে বলেন, গত ৫ তারিখে আকদ করেছি। তিনি (স্ত্রী) ল পাস করেছেন। ক্যামব্রিয়ান স্কুল অ্যান্ড কলেজের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার।

৬৫ বছর বয়সী নূরুল ইসলাম ১৯৫৬ সালের ৫ জানুয়ারি পঞ্চগড়ে জন্মগ্রহণ করেন। পঞ্চগড়-২ (বোদা-দেবীগঞ্জ) আসন থেকে নবম, দশম এবং একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। তিনিও আইনের ছাত্র ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। তখন থেকেই তিনি রাজনীতিতে জড়িত। ডাকসুর বিজ্ঞান মিলনায়তন বিষয়ক সম্পাদক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েল সিনেট সদস্য, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা নুরুল ইসলাম সুজন সুপ্রিম কোর্ট আইনীজীব সমিতির সাধারণ সম্পাদকও হয়েছিলেন। সুজনের প্রথম স্ত্রী নিলুফার ইসলাম ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগের মারা যান। তাদের তিন সন্তান রয়েছে।

২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জিতে প্রথমবার সাংসদ হন পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগের নেতা নুরুল ইসলাম সুজন। পরে দশম এবং একাদশ সংসদ নির্বাচনেও তিনি বিজয়ী হন। ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করলে নুরুল ইসলাম সুজনকে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Related posts

নেটওয়ার্ক বিড়ম্বনার কারণে ব্যাহত হচ্ছে রেলের টিকিট বিক্রি

admin

করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও মারা গেছেন ৬৯ জন

admin

জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে নেত্রকোণায় গুণীজন সম্মাননা প্রদান

admin

Leave a Comment

Translate »