Welcome
জাতীয় বাংলাদেশ ভিডিও নিউজ সাক্ষাৎকার

রাজধানীতে পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ

এসকে জামান || স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসসহ সব ধরনের গণপরিবহন চালুর দাবিতে রাজধানীর সায়েদাবাদে বিক্ষোভ করেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী (২ মে) সকাল ১০টার পর থেকে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে জড়ো হতে থাকে পরিবহন শ্রমিকরা।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাড়ি চালুর ব্যাপারে আগামী মঙ্গলবারের মধ্যে সরকারের সিদ্ধান্ত প্রত্যাশা করছেন শ্রমিকরা। এর মধ্যে গণপরিবহন চালু না হলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন শ্রমিক নেতারা।

বিক্ষোভ মিছিলে প্রায় তিন শতাধিক শ্রমিক অংশ নেন। এসময় শ্রমিকদের হাতে বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ব্যানার-ফেস্টুন দেখা গেছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের অন্তর্ভুক্ত সারা দেশে ২৪৯টি পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন এ আন্দোলন কর্মসূচি পালন করছে আজ রোববার। এছাড়া ৪ মে সারাদেশে জেলা প্রশাসকের কার্যলয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে।

শ্রমিকদের তিন দফা দাবির মধ্যে রয়েছে:

১. স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে নৌপরিবহন ও পণ্য পরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করা।

২. সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করা।

৩. সারাদেশে পাসপোট ট্রাক টার্মিনালগুলোতে পরিবহন শ্রমিকদের জন্য ১০ টাকায় ওএমএসের চাল বিক্রির ব্যবস্থা করা।

শ্রমিকরা বলছেন, করোনা মহামারির মধ্যে চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে দেশে দোকানপাট, অফিস, কারখানাসহ সবই সচল। চলছে না শুধু গণপরিবহন। আর এতে এই খাতে জড়িত ৫০ লাখ শ্রমিক কর্মহীন হয়ে পড়েছে।

ঢাকা জেলা যানবাহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্বাস উদ্দিন বলেন, ‘সরকার গণপরিবহন চালুর ব্যাপারে বারবার আশ্বাস দিয়েছে। কিন্তু চালু হয়নি। আমাদের এখন না খেয়ে মরার অবস্থা। আমাদের শ্রমিকরা গত ২০-২৫ দিন ধরে অনাহারে অর্ধাহারে আছে। আমরা সরকারের কাছে অনুরোধ করব, গণপরিবহন চালু করে দান। আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাড়ি চালাব।

এর আগে গত ২৪ এপ্রিল এক মতবিনিময় সভায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, ‌‌‌‌‌জনস্বার্থ বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে শর্তসাপেক্ষে সরকার গণপরিবহন চালুর সক্রিয় চিন্তাভাবনা করছে।

Related posts

ঢাকা-১৪ উপনির্বাচন: আ. লীগের দলীয় ফরম তুললেন তুহিন

admin

বরগুনায় বসত বাড়ি থেকে ইয়াবাসহ নারী আটক

admin

সকল ব্যাংক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

admin

Leave a Comment

Translate »